[bangla_day] [english_date] [bangla_date]
ই-পেপার   [bangla_day] [english_date]

ভালো অ্যাসাইনমেন্ট লেখার সহজ উপায়
প্রকাশ: 15 October, 2018, 1:26 pm |
অনলাইন সংস্করণ

ভালো অ্যাসাইনমেন্ট লেখার সহজ উপায়

পরিচ্ছন্ন বর্ণনা দিতে পারা সৃজনশীলদের বড় গুণ। শিক্ষার্থীসহ অনেককেই অ্যাসাইনমেন্ট লিখতে হয়। কখনো ক্লাসে, কখনো আবার অফিসে। অ্যাসাইনমেন্ট লেখার চাপে থাকতেই হয় আমাদের। একাডেমিক অ্যাসাইনমেন্ট তৈরির বিধিবদ্ধ নিয়ম জানা না থাকলে এক্ষেত্রে সামনে এগোনো কঠিন। ভালো অ্যাসাইনমেন্ট তৈরির জন্য অবশ্যই কিছু বিষয় জানা থাকা জরুরি।

১. বিষয় নির্বাচন : বিষয় ঠিক থাকতে হবে। বিষয়ের ওপরই নির্ভর করছে অ্যাসাইনমেন্ট কতটা তথ্যবহুল হবে। সুতরাং অ্যাসাইনমেন্ট তৈরির আগে বিষয় নির্বাচন একটি জরুরি বিষয়। ভালো আইডিয়ার বা বিষয়ের কোনো বিকল্প নেই।

২. প্লানিং বা পরিকল্পনা : বিষয় নির্বাচন করার পর দরকার প্ল্যানিং। ভালো পরিকল্পনা। কীভাবে উপস্থাপন করবেন তা ঠিক করুন। এই দুটি ঠিক হয়ে গেলে আপনার প্রাথমিক কাজ শেষ।

৩. আকর্ষণীয় শিরোনাম : আকর্ষণীয় শিরোনাম থাকা চাই। একটু অন্যরকম বা মূল বিষয়ের গভীরের কোনো ইস্যু নিয়ে যদি হয়, তবে তোমারটাই হবে সেরা শিরোনাম। শিরোনাম এমন হওয়া চাই— শিরোনামটি পড়েই পাঠক বা পরীক্ষক যেন গোটা বিষয় সম্পর্কে একটি ধারণা লাভ করতে সক্ষম হন।

৪. উপস্থাপন কৌশল : বিষয়, পরিকল্পনা ও শিরোনাম তো ঠিক হয়েই গেল। এবার ভাবতে হবে উপস্থাপন কৌশল নিয়ে। যার সামনে উপস্থাপন করবেন, তার পছন্দ-অপছন্দ সম্পর্কে জেনে নিতে পারলে ভালো। এক্ষেত্রে আপনার অ্যাসাইনমেন্টের বিষয়টিও মাথায় রাখতে হবে। একই বিষয় আপনার সামনে কেউ উপস্থাপন করলে কোন কোন বিষয়টিতে আপনার চোখ যাবে।

৫. তথ্য সংগ্রহ : অ্যাসাইনমেন্ট লেখার সময় আপনাকে মাথায় রাখতে হবে— আগে ভাবনা পরে লেখা। কাজ শুরুর আগে তথ্য সংগ্রহে ব্যস্ত হওয়ার দরকার নেই। আগে খসড়া করুন। খসড়া তৈরির পর কী কী তথ্য আপনার দরকার, সেসব তথ্য সংগ্রহ করুন।

৬. পরিচিত শব্দ ব্যবহার : অ্যাসাইনমেন্টে একটু কঠিন, দুর্বোধ্য এবং অপরিচিত শব্দ ব্যবহার করলে তার গ্রহণযোগ্যতা বেশি বলে অনেকেই ভাবেন। এটা আসলে ঠিক নয়; বরং আপনি এমন শব্দ ব্যবহার করুন, যা সবার কাছেই পরিচিত। নিজে বোঝেন না, এমন শব্দ কখনোই ব্যবহার করবেন না। অতিরিক্ত অহেতুক, অপরিচিত, কঠিন, দুর্বোধ্য শব্দ কখনো ব্যবহার করবেন না। প্রচলিত শব্দ ব্যবহার করুন। চেষ্টা করুন সহজ ও সরল ভাষায় লিখতে।

৭. ছোট অনুচ্ছেদ : দীর্ঘ বা বড় অনুচ্ছেদ পাঠকের জন্য বিরক্তিকর। অনুচ্ছেদ ছোট হলে একটি মাত্র ভাব, প্রসঙ্গ বা ধারণার অতিরিক্ত তাতে যোগ করা সম্ভব হয় না, ফলে পাঠকের জন্য সুবিধা হয়। প্রতিটি অনুচ্ছেদে পাঠক নতুন প্রসঙ্গ বা তথ্যের সঙ্গে পরিচিত হন, যা পাঠের আগ্রহ ও আনন্দ বাড়িয়ে দেয়।

Spread the love




সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদসমূহ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদকঃ দেলওয়ার হোসেন
নির্বাহী সম্পাদকঃ এস এম মোশারফ হোসেন মিন্টু
বার্তা সম্পাদকঃ
 
মোবাইল- 01711102472
 
Design & Developed by
  কলাপাড়ায় বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মানকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের উপর হামলা,অর্ধশত গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মামলা।।   “পায়রা বন্দরের মাধ্যমে পুরো বাংলাদেশকে আমরা পরিবহন সেবা দিতে চাই” নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী   পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে মঙ্গলবার ৪টি আনলোডার মেশিন যুক্ত হয়েছে।। ৬৩ ভাগ কাজ সম্পন্ন   ঘুরে দাঁড়িয়েছে বন্দর   কলাপাড়ায় জমি অধিগ্রহন না করার দাবিতে কৃষক ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবাদ সম্মেলন   ‘পায়রা সমুদ্র বন্দর বানিজ্য সম্ভাবনার নতুন দরজা”-পটুয়াখালী চেম্বার অব কমার্সের শ্লোগান   পায়রা বন্দরে ২০২১ সালের মধ্যে বাস্তবায়ন হবে ২২ হাজার কোটির টাকার মধ্য মেয়াদী প্রকল্প   নতুন পায়রা সমুদ্রবন্দর বাংলাদেশের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ