[bangla_day] [english_date] [bangla_date]
ই-পেপার   [bangla_day] [english_date]

বৃষ্টি ঝরাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’
প্রকাশ: 12 October, 2018, 2:11 pm |
অনলাইন সংস্করণ

বৃষ্টি ঝরাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’

কলাপাড়া নিউজ ডেস্ক।।
ভারতের ওডিশা ও তৎসংলগ্ন উপকূলীয় এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় তিতলির প্রভাবে বৃষ্টি ঝরছে বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে।

শুক্রবার ভোর থেকে রাজধানীতে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হচ্ছে। এছাড়া দেশের আরও অনেক জেলাতেও বৃষ্টি পড়ার খবর পাওয়া গেছে।

ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’র প্রভাবে উপকূলীয় জেলা টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপের ভাঙা বেড়িবাঁধ দিয়ে পানি ঢুকে বেশকিছু ঘরবাড়ি প্লাবিত ও বসতঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। কুতুবদিয়ায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বেড়িবাঁধ, আমন ফসলি ও শীতকালীন সবজির আবাদ।

সকালের দিকে কয়েক মিনিট রাজধানীর কিছু এলাকায় মুষলধারে বৃষ্টি হলেও পড়ে গুঁড়ি গুঁড়িভাবে পড়তে থাকে বৃষ্টি। সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় বৃষ্টিতে ঢাকাবাসীকে কম দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে। ছুটির দিনের সকালে বেশির ভাগ স্কুল কলেজ ও অফিস বন্ধ। তাই ঘরেই চাদর মুড়ি দিয়ে ঘুমিয়ে বৃষ্টি উপভোগ করছে অনেকে। তবে যারা কাঁচাবাজার করতে গিয়েছেন তাদের দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে। বৃষ্টিতে ভিজেই দিনমজুরদের কাজ করতে হচ্ছে।

শুক্রবার ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, রাজশাহী চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্র বৃষ্টি হওয়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সেইসঙ্গে খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে অতি ভারী বর্ষণ হওয়ার সম্ভাবনাও কথা বলা হয়েছিল।

শুক্রবার সকালে আবহাওয়া অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট বলছে, ভারতের ওডিশা এবং তৎসংলগ উপকূলীয় এলাকায় অবস্থারত ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’ সামান্য উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর এবং দুর্বল হয়ে একই এলাকায় গভীর নিম্মচাপে পরিণত হয়েছে। শুক্রবার সকাল ছয়টায় এটি ভারতের ওডিশা ও তৎসংলগ্ন উপকূলীয় এলাকায় অবস্থান করছিল। এটি আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর হয়ে ক্রমশঃ দুর্বল হতে পারে।

গভীর নিম্নচাপের প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় গভীর সঞ্চালণশীল মেঘমালার সৃষ্টি হয়েছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরসমূহকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

Spread the love




সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদসমূহ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদকঃ দেলওয়ার হোসেন
নির্বাহী সম্পাদকঃ এস এম মোশারফ হোসেন মিন্টু
বার্তা সম্পাদকঃ
 
মোবাইল- 01711102472
 
Design & Developed by
  কলাপাড়ায় বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মানকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের উপর হামলা,অর্ধশত গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মামলা।।   “পায়রা বন্দরের মাধ্যমে পুরো বাংলাদেশকে আমরা পরিবহন সেবা দিতে চাই” নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী   পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে মঙ্গলবার ৪টি আনলোডার মেশিন যুক্ত হয়েছে।। ৬৩ ভাগ কাজ সম্পন্ন   ঘুরে দাঁড়িয়েছে বন্দর   কলাপাড়ায় জমি অধিগ্রহন না করার দাবিতে কৃষক ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবাদ সম্মেলন   ‘পায়রা সমুদ্র বন্দর বানিজ্য সম্ভাবনার নতুন দরজা”-পটুয়াখালী চেম্বার অব কমার্সের শ্লোগান   পায়রা বন্দরে ২০২১ সালের মধ্যে বাস্তবায়ন হবে ২২ হাজার কোটির টাকার মধ্য মেয়াদী প্রকল্প   নতুন পায়রা সমুদ্রবন্দর বাংলাদেশের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ