[bangla_day] [english_date] [bangla_date]
ই-পেপার   [bangla_day] [english_date]

দূর্যোগ ও ভাঙ্গনে কুয়াকাটার ফাতড়ার বনাঞ্চলের গাছ ভেঙ্গে পড়ছে
প্রকাশ: 12 October, 2018, 3:04 pm |
অনলাইন সংস্করণ

দূর্যোগ ও ভাঙ্গনে কুয়াকাটার ফাতড়ার বনাঞ্চলের গাছ ভেঙ্গে পড়ছে

মিলন কর্মকার রাজু ।।
উপক‚লের লাখ লাখ মানুষের জীবন ও সম্পদ রক্ষাকারী কুয়াকাটা সাগর মোহনা ঘেষা ফাতড়ার টেংরাগিড়ি বনাঞ্চলের গাছ প্রাকৃতিক দূর্যোগ এবং সাগর ও নদীর জ্বলোচ্ছাসে ক্রমশ বিলনি হচ্ছে। গত বর্ষা মেীসুমে রিভার সাইডের ম্যানগ্রোভ গাছ ভেঙ্গে পড়েছে। সাগরের উত্তাল ঢেউয়ের তোড়ে ভেঙ্গে পড়া এই গাছগুলো ভাসিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। কোথাও কোথাও বনাঞ্চল দুমড়ে মুচড়ে আছে ঝড়ো তান্ডব। এরফলে কুয়াকাটায় ভ্রমনে আসা পর্যটকদের সাগর পথে ভ্রমনের অন্যতম পর্যটন স্পট রিভার ও সাগর ঘেষা “গৈয়ামতলা পার্কটিও এখন সাগরের ভাঙ্গনে বিলীন হওয়ার পথে।
বন বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ৯ হাজার ৯৭৫ একরের বিশাল ফাতড়ার টেংরাগিরি বনাঞ্চল গত কয়েক বছর ধরেই সাগর ও নদী ভাঙ্গনে বিলীন হচ্ছিলো। ২০০৭ সালের ঘূর্ণিঝড় সিডর ও ২০০৯ সালের মহাসেন তান্ডবে এ বনাঞ্চল প্রাকৃতিক দেয়াল হয়ে উপক‚লের অন্তত ১০ লক্ষাধিক মানুষের সম্পদ ও জীবন রক্ষা করছিলো। কিন্তু দুই বছর আগে ঘূর্ণিঝড় রোয়ানু তান্ডবে লন্ডভন্ড হয়ে গেছে এ বনাঞ্চলের রিভার সাইড। এরপর বিলীন হচ্ছে নদী ও সাগরের ভাঙ্গনে।
সরেজমিনে দেখা যায়, কুয়াকাটা সৈকত থেকে চড়পাড়ার নচেতার খাল, ফেউচ্চাখালি খাল মোহনা থেকে বনাঞ্চলের অভ্যন্তরের শতশত গাছ উপড়ে পড়ে আছে। গোলবাগান এলাকার গোল গাছ চারা ও সাড়ে ছয় হাজার কেওড়া বাগান নষ্ট হয়ে গেছে এ তথ্য জানালেন বন বিভাগের কর্মকর্তারা । বনাঞ্চলের সাথে সাথে এই এখানকার প্রানী বৈচিত্রও ক্ষতিগ্রস্থ্য হয়েছে বলে এলাকার মানুষ জানান।
ফাতড়ার বনাঞ্চল ঘুরে দেখা যায়, বনাঞ্চলের রিভার সাইডের মানগ্রোভ প্রজাতির গাছ সবচেয়ে বেশি ভেঙ্গে পড়েছে। রিভার সাইডের বাগানের অভ্যন্তরে সাগর ও নদীর জোয়ারের পানি ওঠা-নামা করায় বনের বালুর স্তর ক্ষয়ে গাছের মূল শিকড় বের হয়ে গেছে। এ কারণে ঝড়ের প্রথম আঘাতেই এই গাছগুলো হেলে পড়েছে।
গৈয়ামতলা পার্কে ঘুরতে এসেছেন নীলফামারীরর ১৫ সদস্যের একদল পর্যটক। এ দলের আবির, ইতিকা জানালেন, এ পার্কে বসে সাগর ও বনাঞ্চলের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করা যেতো। কিন্তু এখন সৈকত জুড়েই ভাঙ্গা গাছ। আর বনের মধ্য দিয়ে হেঁটে সাগর পাড়ে যাওয়া যাচ্ছে না। তারাও বনের মধ্যে বিভিন্ন ধরণের পাখি মরে পড়ে থাকতে দেখেছেন বলে জানালেন।
বড় নিশানবাড়িয়া ফরেষ্ট ক্যাম্প আমতলী রেঞ্জের ফাতড়ার বনাঞ্চলের দায়িত্বরত ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, বিশাল এ বনাঞ্চলের ক্ষয়ক্ষতির হিসাব করা সম্ভব নয়। তাদের হিসেবে দূর্যোগ হলে কয়েক হাজার গাছ ভেঙ্গে পড়ে। এছাড়া সাগর উত্তাল মেীসুমেও জোয়ারের পানির তোড়ে গাছ ভেঙ্গে যাচ্ছে বলে তিনি জানালেন।

Spread the love




সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদসমূহ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদকঃ দেলওয়ার হোসেন
নির্বাহী সম্পাদকঃ এস এম মোশারফ হোসেন মিন্টু
বার্তা সম্পাদকঃ
 
মোবাইল- 01711102472
 
Design & Developed by
  কলাপাড়ায় বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মানকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের উপর হামলা,অর্ধশত গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মামলা।।   “পায়রা বন্দরের মাধ্যমে পুরো বাংলাদেশকে আমরা পরিবহন সেবা দিতে চাই” নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী   পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে মঙ্গলবার ৪টি আনলোডার মেশিন যুক্ত হয়েছে।। ৬৩ ভাগ কাজ সম্পন্ন   ঘুরে দাঁড়িয়েছে বন্দর   কলাপাড়ায় জমি অধিগ্রহন না করার দাবিতে কৃষক ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবাদ সম্মেলন   ‘পায়রা সমুদ্র বন্দর বানিজ্য সম্ভাবনার নতুন দরজা”-পটুয়াখালী চেম্বার অব কমার্সের শ্লোগান   পায়রা বন্দরে ২০২১ সালের মধ্যে বাস্তবায়ন হবে ২২ হাজার কোটির টাকার মধ্য মেয়াদী প্রকল্প   নতুন পায়রা সমুদ্রবন্দর বাংলাদেশের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ