[bangla_day] [english_date] [bangla_date]
ই-পেপার   [bangla_day] [english_date]

কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী নৌ-রূটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ,দুর্ভোগে হাজারো মানুষ
প্রকাশ: 15 April, 2019, 12:25 pm |
অনলাইন সংস্করণ

কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী নৌ-রূটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ,দুর্ভোগে হাজারো মানুষ


এইচ,এম,হুমায়ন কবির, কলাপাড়া ।।
পটুয়াখালীর কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী নৌ- রুটের লঞ্চ চলাচল মালিকদের অভ্যন্তরীন দ্বন্ধ এবং অভ্যন্তরীন নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের অসহোযোগিতায় বন্ধ হয়ে গেছে । ফলে ভোগান্তিতে পড়েছে এই রুটে চলাচলকারী রাঙ্গাবালীর পাঁচটি দ্বীপ কয়েক হাজার হাজার যাত্রী ও পন্য পরিবহনকারী ব্যবসায়ীরা। কবে নাগাদ এ রুটে লঞ্চ চলাচল স্বাভাবিক হবে তা জানাতে পারেনি বিআইডবিøটিএ কর্তৃপক্ষ এবং লঞ্চ মালিকরা।
লঞ্চ মালিক ও বিআইডবিøউটিএ সূত্রে জানা যায়, চারদিকে নদী বেষ্টিত উপজেলা রাঙ্গাবালীর পাঁচটি দ্বীপ ইউনিয়নের সাথে যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম নদী পথে লঞ্চ চলাচল। দীর্ঘ দিন ধরে কলাপাড়া-নিজকাটা রুটে তানভীরের মালিকানাধীন সাইফান নামের একটি লঞ্চ চলাচল করত। পরবর্তীতে যাত্রীদের চাহিদার বিপরীতে এমএল মিলন এক্সপ্রেস ও এমএল রাহাত নামের আরও দুইটি লঞ্চ যুক্ত হয়। প্রতিদিন কলাপাড়া থেকে সাইফান সকাল সাড়ে সাতটায়, এম.এল মিলন এক্সপ্রেস সকাল সাড়ে আটটায় এবং এম.এল রাহাত বেলা একটায় রাঙ্গাবালির নিজকাটা ছেড়ে যেত। কিন্তু গত শুক্রবার(১২ এপ্রিল) সকালে বিআইডবিøউটির নির্ধারিত সময় ও নির্দিষ্ট নিময়-কানুন নিয়ে মালিকপক্ষের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হলে অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ হয়ে যায় এ রুটের লঞ্চ চলাচল। চলমান এ অচলাবস্থার নিরসন না হওয়ায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দ্বিগুন ভাড়া দিয়ে স্পীড বোড অথবা মাছ ধরা ট্রলারে যাতায়াতসহ পন্য পরিবহন করছে কয়েক হাজার মানুষ ।
লঞ্চের জন্য ঘাটে স্ব-পরিবারে অপেক্ষামান যাত্রী সাইদ ফকির বলেন, ঢাকা থেকে স্ব-পরিবারে এসে দেখি লঞ্চ চলাচল বন্ধ। যাত্রী রাসেল মিয়া বলেন, লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দ্বিগুন ভাড়া দিয়ে স্পীড বোডে চলাচল করতে হচ্ছে। নিজকাটা এলাকার মুদী ব্যবসায়ী মিঠু হাওলাদার বলেন, চরম ঝুঁকি নিয়ে ছোট নৌযানে দ্বিগুন ভাড়া দিয়ে পন্য পরিবহন করতে বাধ্য হচ্ছি।
সাইফানের মালিক তানভির মুন্সী বলেন, এ রুট চালু করতে গিয়ে গত সাড়ে তিন বছরে কয়েক লক্ষ টাকা লোকসান গুনেছি। রুটটি জমজমাট হয়ে ওঠার পরে অন্য দুটির মালিক সাবু গাজী ও এমাদুল আমার লঞ্চটির রুট পারমিট বাতিলের জন্য উঠে পরে লেগেছে। এম.এল মিলন এক্সপ্রেসের মালিক সাবু গাজী বলেন, সাইফান নামের লঞ্চটি কোন পারমিট ছাড়াই দীর্ঘ দিন এ রুটে চলাচল করছে।
পটুয়াখালী বিআউডবিøউটিএ’র সহকারী পরিচালক(বন্দর ও পরিবহন) খাজা সাদিকুর রহমান বলেন, বর্তমানে অশান্ত মৌসুম থাকায় ছোট আকারের লঞ্চ বন্ধ রয়েছে। বিদ্যমান এ সমস্যার সমাধান কবে নাগাদ হবে তা নিশ্চত করে বলা যাচ্ছেনা।

Spread the love




সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদসমূহ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদকঃ দেলওয়ার হোসেন
নির্বাহী সম্পাদকঃ এস এম মোশারফ হোসেন মিন্টু
বার্তা সম্পাদকঃ
 
মোবাইল- 01711102472
 
Design & Developed by
  কলাপাড়ায় বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মানকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের উপর হামলা,অর্ধশত গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মামলা।।   “পায়রা বন্দরের মাধ্যমে পুরো বাংলাদেশকে আমরা পরিবহন সেবা দিতে চাই” নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী   পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে মঙ্গলবার ৪টি আনলোডার মেশিন যুক্ত হয়েছে।। ৬৩ ভাগ কাজ সম্পন্ন   ঘুরে দাঁড়িয়েছে বন্দর   কলাপাড়ায় জমি অধিগ্রহন না করার দাবিতে কৃষক ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবাদ সম্মেলন   ‘পায়রা সমুদ্র বন্দর বানিজ্য সম্ভাবনার নতুন দরজা”-পটুয়াখালী চেম্বার অব কমার্সের শ্লোগান   পায়রা বন্দরে ২০২১ সালের মধ্যে বাস্তবায়ন হবে ২২ হাজার কোটির টাকার মধ্য মেয়াদী প্রকল্প   নতুন পায়রা সমুদ্রবন্দর বাংলাদেশের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ