[bangla_day] [english_date] [bangla_date]
ই-পেপার   [bangla_day] [english_date]

এই দিনে: ১৫ নভেম্বর ২০১৮
প্রকাশ: 15 November, 2018, 7:22 am |
অনলাইন সংস্করণ

এই দিনে: ১৫ নভেম্বর ২০১৮

ইতিহাস কথা বলে। মানুষকে ভাবায়, তাড়িত করে। প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়, যা ভালো, যা মন্দ এবং মানবসভ্যতার জন্য অভিশাপ-আশীর্বাদ। তাই ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সবসময় গুরুত্ব বহন করে। এই গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিন’।

আজ ১৫ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার। ০১ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনা
১৬২১- উত্তর ভারতের কাংড়া দুর্গ মোগল সম্রাট জাহাঙ্গীরের দখলে চলে আসে।
১৭৯৫- হেরেসিম লেবে দিয়েফের উদ্যোগে বাংলার প্রথম মঞ্চনাটক ‘ছদ্মবেশী’ মঞ্চস্থ হয়।
১৮০৬- আমেরিকায় প্রথম কলেজ ম্যাগাজিন প্রকাশ হয়।
১৮৩০- প্রথম ভারতীয় হিসেবে রাজা রামমোহন রায় ইংল্যান্ড যাত্রা করেন।
১৮৩৭- আইজাক পিটম্যানের শর্টহ্যান্ড পদ্ধতি প্রথম প্রকাশ হয়।
১৯৩৫- ফিলিপাইনে কমনওয়েলথের উদ্বোধন হয়।

জন্ম
১৬৭০- ডাচ্‌ দার্শনিক, অর্থনীতিবিদ ও ব্যঙ্গ রচয়িতা বার্নার্ড ম্যান্ডেভিল। তিনি মৌমাছিদের উপাখ্যান লিখে বিখ্যাত হয়েছিলেন।
১৭৩৮- জার্মান বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ জ্যোতির্বিদ ও সুরকার স্যার উইলিয়াম হার্শেল।

হার্শেল মননশীল কৌতূহলী মানুষ ছিলেন। তার পেশা তাকে সুর-শাস্ত্র সম্পর্কে উৎসাহিত করে তোলে। পরবর্তীতে তার আলোক-বিজ্ঞান ও জ্যোতির্বিদ্যায় উৎসাহ তৈরি হলে নক্ষত্ররাজি সম্পর্কে সামগ্রিক সমীক্ষা শুরু করেন। ইউরেনাস গ্রহ আবিষ্কারের মধ্য দিয়ে তিনি বিখ্যাত হন। তিনি প্রমাণ করেন, আকাশে আমরা যে ছায়াপথ দেখি, তা আসলে আমাদের সৌরজগতেরই অংশ। এটা কোটি কোটি তারার সমষ্টি। তিনিই প্রথম নিউটনের অভিকর্ষের সূত্রকে সৌর জগতের বাইরে, তারাদের জগতেও ক্রিয়াশীল হতে দেখেন। যদিও হার্শেলের কিছু ধারণা পরে ভুল প্রমাণিত হয়। সূর্যের কালো দাগগুলোকে তিনি গর্ত ভেবেছিলেন, কিন্তু সেগুলো আসলে আগুনের শিখার মধ্যে দেখতে পাওয়া কৃষ্ণবর্ণ পাহাড় ছাড়া কিছু নয়।
১৮৬২- বিশিষ্ট জার্মান লেখক গেরহার্ড হপম্যান।
১৯৮৬- ভারতীয় টেনিস খেলোয়াড় সানিয়া মির্জা।

মৃত্যু
১৮৫৬- প্রথম শব ব্যবচ্ছেদকারী বাঙালি চিকিৎসক মধুসূদন গুপ্ত।
১৯১৬- নোবেলজয়ী পোলিশ ঔপন্যাসিক হেনরিক সিয়েনকিয়েভিচ।
১৯১৯- নোবেলজয়ী সুইস রসায়নবিদ আলফ্রেড ভের্নেরর।
১৬২৯- হাঙ্গেরির রাজা বেথলেন গ্যাবর।
১৬৩০- জার্মান নক্ষত্রবিদ জোহানেস কেপলার।
১৯২৩- সাংবাদিক ও সম্পাদক পাঁচ কড়ি বন্দ্যোপাধ্যায়।
১৯৫৯- নোবেলজয়ী স্কটিশ পদার্থবিজ্ঞানী চার্লস উইলসন।

Spread the love




সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক সংবাদসমূহ

সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদকঃ দেলওয়ার হোসেন
নির্বাহী সম্পাদকঃ এস এম মোশারফ হোসেন মিন্টু
বার্তা সম্পাদকঃ
 
মোবাইল- 01711102472
 
Design & Developed by
  কলাপাড়ায় বিদ্যুত কেন্দ্র নির্মানকারী সংস্থার কর্মকর্তাদের উপর হামলা,অর্ধশত গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে মামলা।।   “পায়রা বন্দরের মাধ্যমে পুরো বাংলাদেশকে আমরা পরিবহন সেবা দিতে চাই” নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী   পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে মঙ্গলবার ৪টি আনলোডার মেশিন যুক্ত হয়েছে।। ৬৩ ভাগ কাজ সম্পন্ন   ঘুরে দাঁড়িয়েছে বন্দর   কলাপাড়ায় জমি অধিগ্রহন না করার দাবিতে কৃষক ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংবাদ সম্মেলন   ‘পায়রা সমুদ্র বন্দর বানিজ্য সম্ভাবনার নতুন দরজা”-পটুয়াখালী চেম্বার অব কমার্সের শ্লোগান   পায়রা বন্দরে ২০২১ সালের মধ্যে বাস্তবায়ন হবে ২২ হাজার কোটির টাকার মধ্য মেয়াদী প্রকল্প   নতুন পায়রা সমুদ্রবন্দর বাংলাদেশের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ